5-ti-vul-ja-apni-nijer-sisuke-poriskar-korar-somoy-koren-abong-ta-songsodhon-korar-upay

১. ভার্নিক্শ টা কিছুক্ষণ রেখে দিন

মা বাবারা জন্মের ঠিক পরই শিশুকে চান করিয়ে পরিষ্কার করে দেয়। খারাপ লাগলেও, সদ্যজাত শিশুকে জন্মের পর কিছুক্ষণ ভার্নিক্শ নামক সাদা চটচটে বস্তুতে লিপ্ত থাকতে দেবেন, সেটি তার ত্বকের জন্য উপকারী। জন্মের ৬ ঘন্টা পর প্রথম চান করাবেন। ভার্নিক্শ জন্মের পর ২ ঘন্টা পর্যন্ত শিশুর ত্বক রক্ষা করে।

২. শিশুকে দরকারের চেয়ে অধিক চান করানো

সদ্যজাত শিশুদের মোটা চামড়া হয় এবং বেশির ভাগ সময় তারা কম্বলে লিপ্ত থাকে। যদিও চানের নিয়ম থাকা দরকার তাও শিশুদের সপ্তাহে ২ বা ৩ বার চান করালেই তারা পরিষ্কার থাকবে। তবে ডায়পার পরিবর্তনের সময় পরিষ্কার নিশ্চই করবেন।

৩. অধিক শিশুর পণ্য ব্যবহার

মা বাবার সর্বদাই চেষ্টা সন্তানকে পরিষ্কার রাখা। তারা সারাক্ষণ শিশুদের চান, পরিষ্কার ও ম্যাসাজের পণ্য খুঁজে বেড়ান। তবে এইগুলি অধিক ব্যবহার করলে শিশুর ত্বকের ক্ষতি করতে পারে বা এলার্জি হতে পারে। শিশুদের শুধু ময়েশ্চারায়জার ও শুদ্ধিকারক দরকার হয়।

৪.অধিক গরম বা অধিক ঠান্ডা জলে চান

শিশুদের ত্বক খুব কোমল হয় তাই অধিক গরম বা অধিক ঠান্ডা জল তাদের ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। জলের তাপ সঠিক হতে হবে(১০০ ডিগ্রী ফাহরেনহেইট) এবং হিটারের তাপ ১২০ ডিগ্রীর নিচে হতে হবে।

৫. শিশুর নাভি ধরতে ভয় পান

সব মা বাবারাই অপেক্ষায় থাকে যে কবে নাভির কুন্ড শুকিয়ে পরে যাবে আর সেই দিন পযন্ত তারা শিশুর নাভি অতি সাবধানে ধরে। ডাক্তারদের মতে, নাভি কুন্ডে মন না দিয়ে জায়গাটা গজ বা নরম তুলো নিয়ে সাধারণ জল দিয়ে পরিষ্কার করে দিতে পারেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: