sontan-howar-por-dompotider-modhe-je-9-ti-mojadar-alochona-hoi-bangla

১. কত তারাতারি ওর ঘুমের সময় ঠিক করব?

বাচ্চাদের ঘুমের চক্র বড়ই অদ্ভুত। কখন ঘুম পাবে কোনো ঠিক নেই। মা বাবারা এই অপেক্ষায় থাকে যে কবে শিশু নিজে ঘুমিয়ে পরবে এবং তার পর তারা নিজেরাও শান্তিতে ঘুমোতে পারবে।

 

২. রঙের পার্থক্য

আপনাদের কথার মধ্যে একটি বড়ো অংশ প্রাধান্য পায় যে আপনার শিশু কেমন ধরনের পায়খানা করেছে।

 

৩. শিশুর মুখের কথা

বাচ্চা মুখ দিয়ে যাই আওয়াজ করুক মা বাবা উৎসাহ নিয়ে দৌড়ে যান। আবার যদি এটা শিশুর মুখের প্রথম শব্দ হয়।

 

৪. বাথরুমের অভ্যাস

বাচ্চা সোফা ও খাট নোংরা করবে ও আপনি পুরো দিন তা পরিষ্কার করবেন। তখন মনের প্রধান কামনা এই হয়ে দাড়ায় যে কবে শিশু নিজে বুঝে বাথরুম যাওয়ার চেষ্টা করবে ও আপনি এই অনবরত পরিষ্কার করার থেকে রেহাই পাবেন।

 

৫. আবার!

এই কথা স্বামী বা স্ত্রীর মুখে শুনলেই অন্যজন বুঝে যায় যে শিশু কিছু দুস্টুমি।

 

৬. এটা কি আমাদের শিশু?

বাজারে জিনিশ ফেলে দেওয়া কি রেস্তোরাতে কান্নাকাটি করা। সেই মুহুর্তে আপনি নিজেকে আড়াল করতে চান ও নিজেকে লজ্জিত মনে হয়।এবং নানা ধরণের মানুষ আপনাকে দেখতে থাকে।

 

৭. নোখ কাটতে গেলে যদি উঠে পরে?

শিশুর আসে পাশে ধারালো জিনিশ আনতেই মা বাবা ভয় পায়। তবে নোখ কাটা জরুরি না হলে শিশু নিজের নোখ দিয়েই নিজেকে আঘাত করতে।

 

৮. ঘুমের ব্যাঘাত

শিশুর জন্মের পর এক বছর ঘুম যে হবেই না তা জেনে রাখুন। যখন সে অল্প সময় ঘুমোবে তখন আপনিও কিছু মুহূর্ত ঘুমিয়ে নেবেন।

 

৯. ছোটদের ছড়া

হ্যাঁ, ছোটদের ছড়া বা গান এখন থেকে আপনার জীবনের অংশ। এই ছড়া বা গান গাইতে গাইতে আপনার দিন কেটে যাবে। ভালো করে শিখে নিন, খুব দরকার হবে এই কয়েক মাস।

Leave a Reply

%d bloggers like this: