apni-ki-apnor-sisuke-sothik-khowan-xyz

প্রথম কয়েক বছর পর, আপনার পক্ষে এটি নিশ্চিত করা অত্যাবশ্যক যে আপনি আপনার সন্তানকে সঠিক পরিমানে শক্ত খাবার খাওয়ান। আপনি সন্তানের ৫-৭ মাস বয়সের পর তার খাবারের সাথে শক্ত কিছু খাবার যোগ করুন, যা আপনার সন্তান পছন্দ করে। আপনার সন্তানকে কঠিন খাবার খাওয়ানোর সময়, নিশ্চিত করুন যে আপনার সন্তানকে একটি সুস্বাস্থ্যের খাদ্য গ্রহণ করছে । প্রথম কয়েক মাসে আপনে শিশু কে বুকের দুধ ও তার নিজের খাদ্যের সাথে শক্ত সবজি এবং ফল ছোট ছোট টুকরো করে অল্প পরিমাণে দিতে শুরু করুন।

শিশুকে এমন খাদ্য দিন যাতে সে তার স্বাদ অনুভব করে।চিড়িয়াস, চকোস বা লুপ্স এই জাতীয় খাবার আপনার সন্তান কে দিতে পারেন।এই গুলির মধ্যে চালের পুষ্টি আছে কিন্তু মিষ্টি জাতীয় দ্রব্যের পরিমান এর মধ্যে বেশি।

ফল শিশুর জন্য নিরাপদ খাদ্য তবে শিশুকে ফল টুকরো করে দেবার আগে তার শরবত তৈরী করে শিশুকে তার স্বাদ গ্রহণ করান।কিন্তু শিশুকে ফল দেবার আগে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে নেবেন, কিছু কিছু ফল আপনার সন্তানের জন্য সঠিক নাও হতে পারে।

মটর বা শিম জাতীয় খাবার আপনার শিশুর খাদ্য তালিকায় যুক্ত করুন।এর মধ্যে যথেষ্ট পরিমানে পুষ্টিগুণ আছে।কিন্তু এই ধরণের খাবার দেবার আগে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করবেন। তবে বিভিন্ন রঙের সবজি আপনার শিশুর জন্য উপকারী।

পেশী এবং হাড়ের ওজন বাড়ানোর একটি ভাল উপায় হল শাকসবজি এবং মাংস। আপনার সন্তানের লৌহ উপাদানগুলির জন্য সবজি যুক্ত করে ভাল এটি একটি খাদ্য পরিকল্পনা সংগঠিত হবে। মাংস প্রোটিনের একটি সমৃদ্ধ উত্স যা মস্তিষ্কের উন্নয়নে সাহায্য করবে। বিভিন্ন ধরনের শাক সবজি এবং মাংস আপনার সন্তানের শরীরের বিভিন্ন অংশ উন্নয়ন করতে সাহায্য করবে।

আপনার সন্তানের খাদ্যতে দুদগ্ধ জাতীয় পণ্য যোগ করতে ভুলবেন না। পনির বা দুধ আপনার সন্তানের শরীরের মধ্যে ক্যালসিয়ামের পরিমান বজায় রাখতে সাহায্য করবে। আপনার সন্তানের হাড় গঠন তাদের ভবিষ্যতের বৃদ্ধি জন্য একটি প্রাথমিক পর্যায়ে প্রয়োজন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: