ei-5-bar-apni-onubhob-korechen-je-apnar-maa-ekdom-thik-chilen

ছোটবেলা থেকে সব সময়ই আপনি মায়ের বলা সমস্ত কথায় বিরক্ত আর ক্লান্তি বোধ করেছেন। আপনার কোনো ইচ্ছায় তার কঠোর না বলা, তার দুষ্ট গালি এবং সেগুলি আপনি যা করতে চাইতেন সেই সব কিছু থী বাধা দেওয়া; এগুলো কোনোদিনই ভুলতে পারবেননা। আপনি ভেবেছিলেন সে তোমাকে দুঃখী দেখতে চান, বা চান যে আপনি কাঁদুন। সেইসময়গুলিতে আপনি হয়তো ঘুম পাওয়ার বাহানা করে ছুটে নিজের ঘরে ঢুকে বালিশে মুখ গুঁজে কাঁদতেন। তবে, এখন আপনি একটি মা হয়েছেন; এখন আপনি যখনই  পেছনে ফী আসা কথাগুলি মনে করেন তখনই হয়তো আপনার মাকে ভালভাবে বুঝতে পারেন। এখানে ৫টি এমন মুহূর্ত দেওয়া হলো যেখানে আপনি অনুভন করে থাকেন যে মা একদম ঠিক ছিলেন।

১. ঘুম থেকে ওঠা

এমন দিন ছিল যখন আপনি দেরি করে ঘুম থেকে উঠতে চেয়েছিলেন দেরিতে ঘুমনোর ফলে। কিন্তু কীভাবে মা আপনাকে স্কুলে না যাওয়ার অনুমতি দিতেন? তিনি আপনাকে জাগিয়ে তুলতেনই, প্রত্যেকটি সম্ভাব্য উপাযয়ের দ্বারা। আমাদের মধ্যে অনেকেই ঠান্ডা জল গা ঢালার অভিজ্ঞতা ভুলিনি, তাই নয় কি? এখন আপনার সন্তান আছে, এবং আপনি বোঝেন শিশুকে ঘু থেকে তুলতে কি পরিমান সময় ও ধৈর্য লাগে। আপনি আপনার মায়ের ব্যথা এখন অনুভব করেন আর বোঝেন যে ওনার উদ্দেশ্য ভুল ছিলনা!

 

২. নিজের কাজ নিজে করা

আপনার কাজগুলি থেকে ছোটবেলায় পালাবার দিনগুলি কি আপনার মনে পরে? বন্ধুদের সঙ্গে বেরিয়ে দেরী করে ঘরে ঢোকা বা নানা বাহানা বানানো যাতে কাজগুলি এড়িয়ে যাওয়া যায়। এখন, আপনার বাচ্চারা একই কাজ করে। সেই নিষ্ঠুর চক্র অব্যাহতই রয়ে গেছে। আপনার সাহায্য প্রয়োজন এবং আপনি চান আপনার সন্তানরা তাদের দায়িত্ব বুঝুক, কিন্তু আপনার বাচ্চারা একটি শিশু হিসাবে আপনারই আয়না তুলে ধরে আপনার সামনে। ানী এখন বোঝেন আপনার মায়ের কষ্ট।

 

৩. দুধ পান করা এবং নিজের খাবার খাওয়া

তাই, আপনার সন্তানরা কিছুতেই ঠিক করে দুধ বা খাবার খেতে চায়না, ফলে আপনি ভয় পান যে সে পুষ্টির অভাবে ভুগছে।তবে এগুলি আপনারই শৈশবের একটি ফায়ার তাকানো। মার মত, আপনাকেও বাচ্চাদের বলতে হয় সারাক্ষন যাতে সে দুধ পান করে বা নিজের খাবার ঠিক করে খায়।

 

৪. শীতকালে গরম জামা পড়া

আয়ের সাথে শীতকালে সোয়েটার বা গরম জামা পড়া নিয়ে হয়তো কতবার ঝামেলা হয়েছে। এখন একই রকম অভিজ্ঞতা আপনি আপনার শিশুদের সাথে সম্মুখীন হয়ে থাকেন। এখন আপনি হয়তো বুঝতে পারেন শীতকালে খোলে গায়ে ঘুরে বেড়ানো মোটেও ভাল বুদ্ধির পরিচয় নয়, তাই নয় কি?

 

৫. তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়া

রাট জেগে টিভি দেখার নেশা বিশেষ করে কার্টুন চ্যানেল এবং সকালে অংকের ক্লাসে বা ইতিহাসের ক্লাসে পড়তে পড়তে ঘুমিয়ে পড়া, এই দিনগুলি হয়তো আপনার খুবই মনে পরে; আর পাশাপাশি চলতে থাকা মায়ের গালি যাতে আপনি তাড়াতাড়ি ঘুমিয়ে পড়েন।বলার অপেক্ষা রাখে না, এই সব দিনগুলি আপনার সন্তানদের সঙ্গে নিজেকে পুনরাবৃত্তি করে এবং আপনি যা যা করেছেন, আপনার বাচ্চারা তা করতে চায়। আপনি বোঝেন রাতে দেরি কে ঘুমোনোর ফল কি হতে পারে আর আপনি মনে করেন মা ভুল ছিলেননা।

Leave a Reply

%d bloggers like this: