gorbhabosthar-somoy-ki-apnar-coffeei-o-cha-pan-kora-uchit-pregnancy-tips-bangla

 

গাঢ়, রোস্টেড এবং সমৃদ্ধ – আপনারা সবাই যারা ক্যাফিন জাতীয় খাদ্যের ওপর নেশাগ্রস্থ এবং আপনার জীবনের ভালবাসা, তাদের মাথায় প্রথমেই যেই পদার্থের নাম আসে তা হল কফি এবং চা। দুর্ভাগ্যবশত, কফি এবং চায়ের মত পানীয়ে আসক্ত যারা কাজ যারা নতুন মা হতে চলেছে তাদের জন্যে খারাপ খবর আছে।

এই প্রলোভনসঙ্কুল এবং কখনও কখনও শীতল পানীয়ের মধ্যে ক্যাফেইন আপনার স্বাস্থ্যের পাশাপাশি গর্ভাবস্থায় আপনার শিশুর স্বাস্থ্যের কিছু প্রতিকূল প্রভাব ফেলতে পারে।

এখানে, আমরা আপনাকে সংক্ষিপ্তভাবে বুঝতে সাহায্য করছি যে কফি এবং চা গর্ভবস্তায় আপনি যদি পান করেন, তবে থি কতটুকু করা উচিত।

চা ও কফি আপনার জন্যে ক্ষতিকারক কেন?

গর্ভাবস্থায় আপনার শিশুকে যেই প্লাসেন্টাল ব্যারিয়ার রক্ষা করে সেটি আসলে অর্ধভেদ্য। যদিও এটি শিশুকে বিষাক্ত পদার্থ থেকে রক্ষা করে, তবে ক্যাফিন এক ধরনের জিনিস খুব সহজেই এই ব্যারিয়ার ভেদ করে যেতে পারে।

এটি আপনার বাচ্চাকে ক্যাফিন দ্বারা প্রভাবিত হওয়ার আশঙ্কা করে তোলে যা শিশুর পক্ষে দ্রুত পরিশ্রুত করা অসম্ভব, কারণ এটি একটি জটিল পদার্থ। এছাড়াও এটি শিশুর অতি তাড়াতাড়ি জন্ম বা প্রিটার্ম বার্থ এবং কম ওজনের জন্ম ফলাফল ঘটাতে পারে।

মায়েরাও ক্যাফিন দ্বারা প্রভাবিত হয়, কারণ এটি একটি মূত্রবর্ধক এবং আপনার অহরোহ বাথরুমে যাওয়ার অভ্যাসকে জাগিয়ে তুলতে পারে, যা জন্য খুব অস্বস্তিকর হয়ে উঠতে পারে। আপনার অন্যান্য গর্ভাবস্থার অস্বস্তি ছাড়াও আপনি বাড়তি সমস্যার শিকার হতে পারেন।

ক্যাফেইন গ্রহণ করার নিরাপত্তা সীমা কি?

ক্যাফিন শুধুমাত্র কফিতেই পাওয়া যায় না, চা, চকোলেট এবং কয়েকটি ঠান্ডা এবং মাথাব্যথা নিরোধক ঔষধের মধ্যে পাওয়া যায়। এই পণ্যগুলির ব্যবহারের সময় সতর্কতা অবলম্বন করা এখানে খুব গুরুত্বপূর্ণ। কাজেই কোনো পদার্থ কেনার আগেই তার সমৃদ্ধ পদার্থগুলির ব্যাপারে ভাল করে পড়ে নেবেন।

গবেষণায় দেখা গেছে যে ২00 মিলিগ্রাম ক্যাফিন দৈনিক সীমা হিসেবে গ্রহণযোগ্য যা অতিক্রম করা উচিত নয়। তাত্ক্ষণিক কফি বা কোল্ড কফি যদি আপনার প্রতিদিনের অভ্যেস হয়ে থাকে, তবে সেটি রোজ এক মগ নিয়েই আপনাকে সান্ত্বনা পেতে হবে এবং একটি সুস্থ গর্ভাবস্থার জন্য এটি মেনে চলতে শিখতে হবে। ক্যাফে এবং কফি বারের থেকে কফি পান করা অত্যন্ত নিষেধক কারণ এর মধ্যে নির্দিষ্ট ২০০ মিলিগ্রামের তুলনায় আরো বেশি ক্যাফিন থাকে।

আপনি যদি প্রচুর ক্লান্ত বোধ করেন তবে প্রচুর পরিমাণে দুধ এবং অল্প পরিমানে চা বা কফি মিলিয়ে একটি হালকা কাপ চা বা কফি পান করে নিরাপদ উপায়ে ক্যাফিন গ্রহণ করতে পারেন।

আমরা জানি যে আপনারা যারা কফি বা চা চান তারা হয়তো এগুলো শুনতে চান না, তবে এটি কেবল আপনার নিরাপত্তার জন্য। এই পানীয়ের বিকল্পগুলি রয়েছে, যেমন ফলের জুসগুলি।এগুলি স্বাদে মজাদার এবং আপনার শিশুর জন্যেও নিশ্চিত হতে পারে। মনে রাখবেন আপনাকে এবং আপনার সন্তানের উভয়ের জন্যই প্রয়োজন, এমন সব পুষ্টিই আপনাকে সরবরাহ করতে হবে।

অতএব কিছু মাসের জন্যে আপনার ইচ্ছেগুলিকে একটু থামিয়ে রাখুন কারণ এতে আপনার ও আপনার শিশুরই মঙ্গল।

Leave a Reply

%d bloggers like this: