bachchake-stonyopan-charanor-jonyo-3ti-rondhon-pronalli-ja-apnake-sahajyo-korbe-bangla

শিশুর স্তন্যপানের অভ্যাস ছাড়ানো তার পরিচর্চার একটি গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায়। মা হিসাবে আপনি আন্তরিকভাবে চাইবেন আপনার শিশু মায়ের দুধের বাইরে শক্ত খাবারে অভ্যস্ত হয়ে উঠুক, আবার তার সঙ্গে আপনার ছোট্ট শিশুকে যতটা সম্ভব মায়ের দুধ থেকে সরিয়ে রাখাও আপনার কাছে যথেষ্ট উদ্বেগের বিষয়। যদিও ক্রমিক অনুশীলনের মধ্যে দিয়ে এই পর্যায় অতিক্রম করতে হয়, কিন্তু বাচ্চার আপত্তিসুলভ কান্নাকাটি মাকে আবেগ তাড়িত করে তোলে। 

বস্তুতপক্ষে শিশুর বৃদ্ধিও বিকাশের জন্য এটি একটি প্রয়োজনীয় অনুশীলন যেহেতু শিশু বেড়ে ওঠার সাথে সাথে তার মায়ের দুধের অতিরিক্ত যে পরিপোষক পুষ্টি দরকার তা বিভিন্ন খাদ্যউৎস থেকে গ্রহণ করতে হয়। যে শিশুর মায়ের পর্যাপ্ত পরিমাণে বুকের দুধ থাকে না বা অন্য কোন দুর্ভাগ্যপূর্ণ কারণে যে সমস্ত শিশুর মাতৃদুগ্ধ পানে ঘাটতি ঘটে, সেইসব শিশুদের ক্ষেত্রে ধীরে ধীরে ফর্মুলা খাদ্য থেকে ক্রমাগত শক্ত খাবারের দিকে যেতে হয়।

এর সম্পর্কে আরো ভালোভাবে জানতে এখানে দেখুন

কখন বাচ্চাদের শক্ত খাদ্যের দিকে নিয়ে যাওয়া শুরু হয়?

দেখা গেছে যখন শিশুর বয়স ছয় মাসের কাছাকাছি, তখন তাদের বড়দের পছন্দের খাবাবের দিকে ঝোঁক বাড়ে। এই সময়ের মধ্যে শিশুদের মাথার টলমলে ভাব চলে গিয়ে শক্ত হয়ে ওঠে। সে কোন অবলম্বনের সাহায্যে ধীরে ধীরে বসতে শেখে এবং সাধারনতঃ এই সময়ের আগুপিছু বাচ্চার দাঁত উঠতে শুরু করে।

আপনার শিশু যে শক্ত খাবারের জন্য উপযুক্ত হয়ে উঠছে তা বুঝতে পারবেন এই লক্ষণগুলো দেখে – সে আপনার কাছে পৌঁছতে চেষ্টা করবে; আপনার হাতে থাকা খাবার চেপে ধরবে; আপনাকে খেতে দেখলে নিজে হাঁ করে বোঝাতে চাইবে যে সেও খেতে চায়; ক্ষিদে পেয়েছে বোঝানোর জন্য চিৎকার করে কাঁদতে থাকবে; নিজের হাত চুষতে থাকবে ইত্যাদি।

 

কতগুলি ভুল লক্ষণ যা দেখে মনে হতে পারে যে আপনার শিশু শক্ত খাবারের জন্য উপযুক্ত হয়ে উঠেছে

মায়েদের ধৈর্য্য নিয়ে অপেক্ষা করতে হবে যতক্ষণ না শিশু শক্ত খাবারের জন্য উপযুক্ত হয়ে উঠছে। না হলে বিপজ্জনক প্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে, যেমন ডায়ারিয়া এমনকি ফুসফুসে সংক্রমণ হতে পারে যদি বুকের দুধ এবং ফর্মুলা ফুড বন্ধ করে বা কমিয়ে দিয়ে হঠাৎ করে শক্ত খাবার দেওয়া শুরু করা হয়।

শিশুর বারবার তার হাত চিবানো, রাতে বার বার ঘুম ভেঙ্গে উঠা বা আরো বেশী দুধ খেতে চাওয়া দেখে এই ভুল করা উচিত নয় যে আপনার শিশু শক্ত খাবারের জন্য উপযুক্ত হয়ে উঠেছে। বাচ্চা রাতে অনেকবারই গভীর ঘুম থেকে হালকা ঘুমের পর্যায়ে চলে আসতে পারে এবং শিশুকে শক্ত খাবারে অভ্যাস করানো তার ঘুমের পর্যায়ক্রমিক অবস্থানের পরিবর্তন ঘটায় না। আবার হাত চিবানো বাচ্চাদের একটা স্বাভাবিক বৈশিষ্ট্য এবং তার সঙ্গে বাচ্চার ক্ষিদের কোন সম্পর্ক নেই। শিশুদের জন্য আরো বেশী খেতে চাওয়াও একটা সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক দাবি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: