13-rokom-bhabe-apni-swamike-janate-paren-j-apnar-onake-pashr-dorkar

একসাথে মা, বউ ও চাকুরেজিবি হওয়া সত্যি খুব মুশকিল। স্বামির জন্য আপনার আর সময় থাকে না। আপনার হয়তো মনে হয় যে আপনি ওনাকে একটু বোঝাতে চান যে আপনি তাঁর গুরুত্ব বোঝেন, কিন্তু বোঝানোর সময় পান না। কিন্তু আমরা আপনাকে কতগুলি উপায় দিচ্ছি আপনার স্বামীকে জানানোর জন্য যে আপনার ওনাকে পাশে দরকার।…

১.উল্লেখ্য ছেড়ে যান

যদি ব্যস্ততায় ওনার সাথে সময় না পান তাহলে খাতের ওপর একটি ছোট চিরকুটে বা ল্যাপটপে ওনার জন্য ছোট করে উল্লেখ্য ছেড়ে যান।

২. ভয়েস মেসেজ

মোবাইলে ভয়েস মেসেজ পাঠান যে কাজের পরে কফিতে যাবেন বা কোনো গান শোনাতে বলুন!

৩.কথা বলুন

ওনাকে সরাসরি কাছে টেনে এনে বলুন যে আপনার ওনাকে দরকার। পুরনো দিনের কথা মনে করিয়ে ফের প্রেম জাগিয়ে তুলুন!

৪. একসাথে রান্না করুন

খাবার ও ভ্রমন নিয়ে আলোচনা করুন একসাথে রবিবার দুপুরে রান্না করতে করতে!

৫. বাইরে খেতে যান

শিশুদের দাদু দিদার কাছে পাঠিয়ে আপনারা সিনেমা দেখুন,বাইরে খান বা বন্ধুদের সাথে আড্ডা মারুন!

৬. এক সাথে হাটুন

কাজের আগে ১৫ মিনিট হেটে হার জুড়িয়ে নিন!

৭. জড়িয়ে ধরুন

স্বামীকে জড়িয়ে ধরে একটা সুন্দর মুহূর্ত ছিনিয়ে নিন!

৮. হাত ধরুন

নিজের ভালবাস এই ছোট ছোট ভাবেই দেখাতে হয়।

৯. সন্তান মানুষ করা নিয়ে আলোচনা

কথা বলুন স্বামীর সাথে যে কিভাবে মানুষ করতে চান শিশুদের।

১০. সপ্তাহের শেষের জন্য প্ল্যান করুন

বেশি কিছু করতে হবে না, শুধু রবিবার ভোরে বাচ্চারা ওঠার আগে ময়দানের পাশ দিয়ে লঙ ড্রাইভ দিয়ে নিন!

১১. বাড়ির কাজ এক সাথে করুন

এক সাথে একে অন্যের বোঝা ভাগ করে নিলে ভালোবাসা বাড়বে আপনাদের মধ্যে!

১২. নিজেদের অবস্থার ওপর কোনো বই পেলে দিন

এমন কোনো বই দিন যার সাথে আপনার জীবনের মিল পান। দেখুন স্বামীও এক কথা বলেন কি না?

১৩. পরামর্শ চান

ছোট বিষয় হলেও চলবে, দেখুন ওনার ভাবনা চিন্তা আপনার থেকে কতটা আলাদা। এতে আপনারা েকে অপরকেও ভালো বুঝবেন!

শিশু হওয়ার পর স্বামী স্ত্রীর ,ধেয়ে ভালোবাসা বজায় রাখার উপায় আরো বিশদ ভাবে জানতে এখানে দেখুন

Leave a Reply

%d bloggers like this: