প্রাথমিকভাবে কোন কোন ৫টি সুস্বাদু খাবারের সাথে শিশুদের পরিচয় করতে হবে?

 

৮ মাস বয়স পর্যন্ত আপনার বাচ্চাকে কোন মশলাদার খাবার দেওয়া উচিত নয়। আপনার সন্তানের এই ধরণের খাবার হজম করার জন্য অপেক্ষা করুন। আপনার সন্তানের খাদ্যের মধ্যে মশলা প্রবর্তন করার সময়, মনে রাখবেন সারাদিনে শুধুমাত্র একবারের জন্য দিতে পারেন।এবং আপনি অন্য কিছু প্রবর্তন করার আগে কয়েক দিনের বিরতি নিশ্চিত করুন।

এই নতুন উপাদানগুলি শিশুকে দেবার আগে অ্যালার্জি পরীক্ষা করতে বা নির্দিষ্ট খাবারের প্রতি আপনার শিশুর নতুন স্বাদ উপভোগের জন্য উপযুক্ত সময় দিবেন। সঠিক বয়সে পৌঁছানো না পর্যন্ত আপনার শিশুকে অত্যধিক মশালাদার খাবার দেবেন না।

মশলা অন্তত কম পরিমাণে ব্যবহার করুন, অতিরিক্ত ব্যবহারে শিশুর পেট খারাপ হতে পারে। নিয়মিত খাবারে এই মশলা অল্প পরিমানে মিশ্রিত করুন ফলে আপনার শিশুর মুখের স্বাদের পরিবর্তন হবে। আপনার সন্তানের খাদ্যে মশলা যোগ করার ফলে আপনাকে খাবারের মধ্যে লবণ ব্যবহার কমাতে সাহায্য করতে পারে। যেহেতু মশলাগুলিতে লবণের প্রাকৃতিক উপাদান রয়েছে, তাই সাধারণ লবণের ব্যবহার এড়িয়ে চলতে পারেন।

এখানে কয়েকটি সুস্বাদু খাবার রয়েছে যেগুলিতে আপনি অল্প মশলা ব্যবহার করতে পারেন।

১.পায়েস

সাধারণ পায়েসের সাথে আপনি দারুচিনি, এলাচ বা জায়ফলের গুঁড়ো যোগ করতে পারেন। আপনার সন্তানের প্রয়োজনীয় দুধ এবং চাল জাতীয় খাদ্য প্রদানের সময়, আপনি এই মশলাগুলির সূক্ষ্ম স্বাদ সন্তানের সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে পারেন।

২. ডাল

আপনার শিশুর জন্য মুসুর ডাল তৈরি করার সময় আপনি অল্প সরিষা গুঁড়ো,মৌরি, জিরা, বা হলুদ এর গুঁড়ো যোগ করুন। অল্প গুঁড়ো করা চাল এর সাথে মেশাতে পারে। আপনার সন্তানের কাছে এটি,তাদের জীবনের অত্যাবশ্যক পুষ্টি প্রদান করতে পারে।

৩. মিষ্টি দই

আপনার সন্তানের দই মধ্যে পুদিনা পেস্ট যোগ করুন, এবং তাদের এই ধরণের মশলার স্বাদ উপভোগ করান।

৪.প্যানকেকস

আপনি যখন প্যানকেকস তৈরী করবেন তার ওপরে স্ট্রবেরি বা মিন্ট জ্যামের প্রলেপ দিতে পারেন। টক স্বাদ আপনার শিশুর পছন্দ হতে পারে।

৫. জিরা ভেজানো জল

জিরা ভেজানো জল শিশুদের পেট ঠান্ডা করে।এবং এই অন্য প্রকারের স্বাদ আপনার শিশু পছন্দ করবে।

Leave a Reply

%d bloggers like this: