আপনি নেতিবাচক হলে সমস্যার সম্মুখীন কম হবেন! কিভাবে?

জীবনে সফল হওয়ার জন্য আপনাকে ইতিবাচক থাকতে হবে, এই কথা যেমন ঠিক, এর পাশাপাশি এটাও খেয়াল রাখতে হবে কোনও কিছুর প্রতি অতিরিক্ত চাহিদা প্রত্যাশা বাড়িয়ে তোলে। আর যখনই প্রত্যাশিত ফলাফল পাবেন না, আপনি অবসাদে ভুগতে শুরু করবেন। এই সময়ে আপনি কি করবেন?


সাম্প্রতিক গবেষণায় উপর ভিত্তি করে মনোবিদরা জানাচ্ছেন যে, জীবনে সবক্ষেত্রে নেতিবাচক হওয়া ভাল। এমনকী আপনি যদি বেশি নেতিবাচক মানসিকতার হন তাও। নেতিবাচক মানসিকতা থেকেই বিচার বিবেচনা বোধ দৃঢ় হতে থাকে।


সব সময়ে ইতিবাচক থাকলে ব্যর্থ হওয়ার আশঙ্কা বেশি। কিছু সময়ের জন্য ইতিবাচক মানসিকতা সুবিধা হলেও এটা ক্ষতির কারণ হতে পারে। একজন মানুষের সব ধরনের অনুভূতিই প্রকাশ করার প্রয়োজন। যে কোনও নির্দিষ্ট অনুভূতিতে আপনি সব সময়ে থাকলে আপনার পক্ষে খারাপ হতে পারে।


আপনি যদি কোনো অদ্ভুত রংয়ের মোজা পরেন, তবে আপনার ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল, এছাড়াও দেখা গিয়েছে, নেতিবাচক চিন্তা করেন এমন উকিল বা চিকিৎসকেরা অন্যদের তুলনায় বেশি সফল। এর কারণ, এঁরা সবচেয়ে খারাপ ফলাফলের কথা মনে রেখেই যাবতীয় কাজ কর্ম করেন। এই কারণে না না ধরণের উপায় বা পথ চলে আসে তাদের সামনে। সেই কারণে নেতিবাচক চিন্তাও মানুষের জন্য উপকারী।

Leave a Reply

%d bloggers like this: