গবেষণা কি বলছে বুদ্ধি এবং ব্রেন বেশি কাজ ছেলেদের না মেয়েদের করে

নারী বনাম পুরুষ এই লড়াই চিরকালের এবং এই প্রসঙ্গ নিয়ে তর্কে হয়ে আসছে এবং চিরকাল তর্ক চলবে। কারা কাকে টক্কর দেবে এই নিয়ে চলে আসছে তুফান। যার নিষ্পত্তি প্রায় অসম্ভব। তবে বৈজ্ঞানিক গবেষণায় সম্প্রতি উঠে এসেছে আশ্চর্য তথ্য। যা নিয়ে এই তর্কে যোগ হতে পারে নতুন মাত্রা!

নিউজিল্যান্ডের ইরাসমাস বিশ্ববিদ্যালয়ে নিউরোলজিস্টদের বৈজ্ঞানিক গবেষণা করেছে পুরুষ ও নারীর মস্তিষ্ক নিয়ে। গবেষণার ফলাফল জানাচ্ছে, ছেলেদের মস্তিষ্ক মেয়েদের তুলনায় আকারে অনেক বড়। সেই কারণে মেয়েদের মস্তিষ্কের তুলনায় ছেলেদের ব্রেন সেল এর সংখ্যা বেশি। কিন্তু এর পরও, মেয়েরা মস্তিষ্কের ব্যবহারে অনেক বেশি দক্ষ। কারণ রিজনিং ও নিউরন এর মধ্যে যোগাযোগ সাধনে অনেক বেশি নিপুণ তারা। এর ফলে ছেলেদের তুলনায় মেয়েরা অনেক তাড়াতাড়ি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারে।

বিষয়টি নিয়ে নানা ভাবে পরীক্ষা করে দেখেছেন বিজ্ঞানীরা, যে কেন ছেলেদের মস্তিষ্কের আকার বড় হওয়ার পরেও মেয়েদের তুলনায় তারা সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতায় পিছিয়ে কেন। গবেষণায় তাঁরা লক্ষ করেছেন যে, মস্তিষ্কের যে অংশটি আবেগ ও স্মৃতির মধ্যে সংযোগ রক্ষিত হয়, সেই অংশটি ছেলেদের বড় হওয়া সত্ত্বেও মেয়েদের ক্ষেত্রে ওই অংশটির ক্ষমতা অনেক বেশি। তাই এমনটাই মত গবেষকদের যে ছেলেদের বড় মস্তিষ্ক হওয়া সত্ত্বেও মেয়েরা তাদের ক্ষমতা দেখিয়ে দিয়েছে নিঃসন্দেহে। 

Leave a Reply

%d bloggers like this: