কথাটি হানিমুন কেন? কি কারণ এর পেছনে?

বিয়ের পর স্বামী স্ত্রীর একসাথে প্রথম ঘুরতে যাওয়া এক অসাধারণ অভিজ্ঞতা। প্রত্যেকটি বিবাহের পরই দেখা যায়, স্বামী স্ত্রী হয় নিজেরা বা পরিবারের উৎসাহের দ্বারা প্রভাবিত হয়ে দুজনে এক ঘুরতে যায়; কেউ কাছে, কেউ দূরে বেড়াতে যান; আবার কেউ ১ থেকে ২ সপ্তাহ আবার কেউ এক মাস ধরে ঘুরতে যান। বোয়া হয় এই যাত্রার মাধ্যমে স্বামী স্ত্রী দুজন দুজনকে খুব কাছ থেকে চিনতে পারেন, নিজেদের মধ্যে সময় কাটাতে পারেন ও েকে ওপরের প্রতি আরো বেশি করে আকর্ষিত হয়ে পড়েন।

আপনারা সকলেই জানেন বিয়ের পর এই বেড়াতে যাওয়াকে আমরা প্রত্যেকে বলে থাকি ‘হানিমুন’। কিন্তু কখনো কি আপনাদের মাথায় এই চিন্তাটি এসেছে যে হঠাৎ করে এই শব্দটি হানিমুন বলা হল কেন? অনেক ঘেটে নিচের এই ৩টি কারণ পাওয়া গেছে। আসুন দেখে নেওয়া যাক।

১. ‘হনিমুন’ শব্দের উৎস ব্যাবিলন থেকে হয়। প্রাচীন ব্যাবিলনে বিয়ের পরে পাত্রীর বাবা পাত্রকে তাঁর চাহিদামতো মধু দিয়ে তৈরি মদ উপহার দিতেন। এই মদ থেকেই কথাটি এসেছে ‘হানি’ । ব্যাবিলনের ক্যালেন্ডার ছিল চান্দ্র। সেখান থেকে এসেছে মুন। গোড়ায় নাকি ব্যাবিলনে বিয়ের পরের মাসকে হানি মান্থ বলা হত। সেখান থেকে ক্রমশ পরিবর্তিত হতে হতে কথাটি এলো হনিমুন।

২. এই ব্যাখ্যায় বলা হয়, বিয়ের পরে টানা একমাস প্রতিদিন একপাত্র করে মধু দিয়ে তৈরি মদ খেতে হত নবদম্পতিকে। পাত্রীকে বিয়ে করে এভাবে বিয়ের পরে একমাস ধরে মধু দিয়ে তৈরি মদ খাওয়ার প্রথা সেই হুন রাজা অ্যাটিলার সময় থেকে চালু ছিল। সেই থেকে এসেছে হানিমুন।

৩. ‘মুন’ শব্দটির সঙ্গে ঋতুচক্রের যোগ রয়েছে। বলা বাহুল্য, গোটা ব্যাখ্যাটির সঙ্গে যৌনতা ওতপ্রোতভাবে জড়িত। এর সঙ্গে হানি বা মধু জুড়ে দেওয়া হয়েছিল এটা বোঝাতে যে, বিয়ের পর সব সময় কিন্তু একইরকম সুখ নাও হতে পারে।

এই মজার পোস্টি শেয়ার করুন ও সকলকে জানান হানিমুনের কারণ।

বিয়ের পর আপনি কি মোটা হচ্ছেন?
দম্পতিদের নিয়ে ১০ টি মিষ্টি আঁকা
১০ জোড়া সেক্সি জিনিস যাহা দম্পতিদের পুনর্বিবেচনা করা উচিত
সন্তান হওয়ার পর দম্পতিদের মধ্যে যে ৯ টি মজাদার আলোচনা হয়

 

Leave a Reply

%d bloggers like this: