খাবারের সাথে নির্ভর করে প্রেমভাগ্য? এ কি কথা?

যে সকল পুরুষরা অধিক পরিমাণে শাক-সবজি ও ফল খান, তাঁদের শরীরের গন্ধে বেশি আকৃষ্ট হন মহিলারা। বিজ্ঞানীদের মতে, মানবদেহ থেকে নিঃসৃত ঘাম স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রণ রাখতে সাহায্য করে। একই সাথে সঙ্গী খুঁজে পেতে সাহায্য করে।


পুরুষের মধ্যে স্বাস্থ্য, ব্যক্তিত্ব না অন্য কিছু দেখে আকর্ষিত হয় মেয়েরা, এই নিয়ে নানান মতামত চলতে থাকবে। তবে সাম্প্রতিককালের জানা গেছে, অধিকাংশ মহিলা প্রেমে পড়েন পুরুষের শরীরের গন্ধ থেকে। আমাদের সবারই জানা, প্রত্যেক মানুষের শরীরে একটি নিজস্ব গন্ধ রয়েছে, যা বিপরীত লিঙ্গকে আকর্ষণ বা বিকর্ষণ করে। আর এই শরীরী গন্ধ কেমন হবে, তা কিন্তু নির্ভর করে খাদ্যাভ্যাসের উপরই।


অস্ট্রেলিয়ার ম্যাককারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইয়ান স্টিফেন জানিয়েছেন, সকলেই জানেন যে, আকর্ষণের একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হল শরীরের ঘ্রাণ বা ঘন্ধ, বিশেষ করে মহিলাদের ক্ষেত্রে তা বেশি প্রযোজ্য। মহিলাদের মধ্যে ৫৩% জানিয়েছেন যে তাঁদের এমন পুরুষ পছন্দ, যাঁরা কোনও পারফিউম ব্যবহার করেন না। অন্যদিকে, ৬৩% পুরুষও একই কথা বলেন। অন্য এক তথ্যে দেখা গিয়েছে যে, ৭৮% মহিলারই অপছন্দ যে সব পুরুষের গায়ে দুর্গন্ধ রয়েছে।


গবেষকরা এই পরীক্ষা করার জন্য একদল স্বাস্থ্যবান পুরুষকে বেছে নিয়েছিলেন। স্পেক্ট্রোফোটোমিটার যন্ত্রের সাহায্যে ওই পুরুষদের ত্বকের পরীক্ষ করা হয় প্রথমে। ফল স্বরূপ যে সব পুরুষ বেশি শাক সবজি খান, তাঁদের ত্বকে ক্যারোটেনয়েড বেশি মাত্রায় জমা হয়। ত্বকে ক্যারোটেনয়েডের মাত্রা শরীরী ঘ্রাণে পার্থক্য তৈরী করে দেয়।


এই পরীক্ষার পর ওই পুরুষদের নতুন জামা দেওয়া হয়। এবং ওই জামা পরে তাঁদের শরীরচর্চা করতে বলা হয়। কিছুক্ষন পরে তাঁদের ঘর্মাক্ত জামা নিয়ে বেশ কিছু মহিলাকে শুঁকে দেখতে বলা হয়। দেখা যায়, যাদের ত্বকে ক্যারোটেনয়েড বেশি মাত্রায় রয়েছে, তাঁদের জামার ঘন্ধ পছন্দ করছেন মহিলারা।

Leave a Reply

%d bloggers like this: