গর্ভাবস্থায় কি আপনার দেহের চুল স্বাভাবিকের চেয়ে দ্রুততর বৃদ্ধি পাচ্ছে? কেন?


আপনার মাথার ঘন চুল আপনার মনে উদ্বেগের কারণ নাও হতে পারে, বরং ভালোই লাগবে। কিন্তু আপনার হাতে, পায়ে এবং অন্যান্য জায়গায় দ্রুত বর্ধনশীল চুল গর্ভাবস্থায় একটি উপসর্গ হতে পারে। যদিও গর্ভাবস্থায় আপনার শরীরের চুল নিয়ন্ত্রণে রাখতে আপনি অবিরত শেভ করতে পারেন, কিন্তু দ্রুত চুল বৃদ্ধি সাধারণত একটি অস্থায়ী অবস্থা যা আপনার জন্ম দেওয়ার পরে খুব শীঘ্রই সমাধান হয়ে যায়।

গর্ভাবস্থার হরমোনগুলি চুলের বৃদ্ধি এবং গঠন পরিবর্তন করতে পারে। এই হরমোনগুলি বিভিন্ন গর্ভবতী মহিলাদেরকে বিভিন্নভাবে প্রভাবিত করে। কিছু মহিলাদের দ্রুত বর্ধনশীল চুলের সম্মুখীন হতে হয় আবার অন্যরা গর্ভাবস্থায় তাদের চুলের কোন উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন লক্ষ্য করতে পারেন না। এন্ড্রোজেন হরমোন শরীরের এবং মুখের চুলের বৃদ্ধি করে যা আপনার পেট বা স্তনে অপ্রত্যাশিত এবং অবাঞ্ছিত জায়গায় নতুন চুল করে। ইস্ট্রোজেন হরমোন আপনার চুলের ক্রমবর্ধমান চক্র প্রসারিত করে যার ফলে আপনার মাথার খুলি ঘন চুলে আবৃত হয়।

এখানে গর্ভাবস্থায় আপনার চুলের বৃদ্ধি এবং তাদের পিছনে কারণগুলির মধ্যে কিছু পরিবর্তন দেখতে পাবেন

১. প্রথম ত্রৈমাসিকে গর্ভাবস্থায় প্ররোচিত চুলের বৃদ্ধির মুখোমুখি হতে শুরু করেন একজন গর্ভবতী মহিলা ঠিক যখন তাদের শরীরের ওজন বৃদ্ধি পায়। চুল সাধারণত এই সময়ে আগের তুলনায় পূর্ণাঙ্গ এবং ঘন হয়ে ওঠে । গর্ভধারণের সময়, হরমোনের বৃদ্ধি চুলকে বিশ্রামের অবস্থায় দীর্ঘকাল ধরে থাকার জন্য সৃষ্টি করে। এইভাবে উজ্জ্বল চুলের চেহারা প্রদর্শিত হয়।

২. গর্ভাবস্থায় একটি মহিলা ভারী খাবার খেয়ে থাকেন। এই সময় কর্টিসোল হরমোন ঘুম কমিয়ে ফেলে কিন্তু এটি শরীরের দ্রুত গতিতে প্রসারিত চুল বৃদ্ধি করে।

৩. প্রগ্রেস্টারন, গর্ভবতী মহিলাদের পাওয়া একটি হরমোন প্রসূতির যা চুলের ফলিকেল জীবিত করে তোলে। এটি চুল বৃদ্ধির ধাপ প্রসারিত করে, যার ফলে চুল কম পড়ে এবং ঘন হয়ে ওঠে।

৪. গর্ভাবস্থায় চুলের গঠন পরিবর্তন খুব সাধারণ। উদাহরণস্বরূপ, ঢেউ খেলানো চুল সোজা বা উল্টোটা হতে পারে। চুল এমনকি খুব শুষ্ক বা খুব তৈলাক্ত হয়ে যেতে পারে। কিছু নারীর ক্ষেত্রে চুলের রং পরিবর্তন হয়ে যেতে পারে।

৫. গর্ভাবস্থায় আপনার চুলের বৃদ্ধির পরিবর্তনগুলির জন্য গর্ভধারণ হরমোন এস্ট্রোজেনকে বিশেষ মনে করতে পারেন। আপনার চুল যেমন দ্রুত বৃদ্ধি পায় তেমন হ্রাস হওয়ারও সম্ভাবনা কম থাকে। বাড়তি রক্ত ​​সঞ্চালন এবং আপনার উচ্চ বিপাকীয়তা আপনার চুলে আরও পুষ্টি এনে দেয়।

আপনার গর্ভাবস্থার সময় এবং পরে অনেক পরিবর্তন দেখতে পাবেন; তাই ভবিষ্যতে কিসের জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে এবং কিসের জন্যে নয়, সেগুলি আগে থেকেই জেনে রাখা ভাল। এবং যেসব মায়েরা ইতিমধ্যে তাদের জীবনে এই বিশেষ মুহূর্ত উপভোগ করে ফেলেছেন, আমরা নিশ্চিত আপনি এটি পরে নিজের সাথে মিল খুঁজে পাচ্ছেন।

গর্ভাবস্থায় ডায়াবেটিস
গর্ভাবস্থায় ঘুমের চক্র
গর্ভাবস্থায় ব্রণ থেকে ৬ ধরণের ঘরোয়া উপায়
৬ টি উপায় যাতে গর্ভাবস্থায় অস্তীয়পোরোসিস না হয়
এই লক্ষণগুলি দেখলে বুঝবেন আপনার গর্ভাবস্থায় বিপদের আশঙ্কা আছে

Leave a Reply

%d bloggers like this: