মাথা যন্ত্রণা থেকে স্বস্তি পাবার ঘরোয়া পদ্ধতি

মাথা যন্ত্রনা! যখন যার হয় তখন সেই বোঝে কতটা অস্বস্তিদায়ক। বিশেষত যদি মাইগ্রেনের কারণে মাথা ব্যথা হয় তাহলে কষ্ট বেশি। কড়া আলোর দিকে তাকালে বা জোরালো আওয়াজ শুনলেই মাথার একদিকে শুরু হয় যন্ত্রনা। এছাড়া ঘাড়ে ও চোখে ব্যথা, জলে ভোরে থাকে চোখ, সারাদিন ক্লান্তিবোধ, বমি বমি ভাব, বার বার হাই ওঠা ইত্যাদি হল মাইগ্রেনের উপসর্গ। তাই মাথা ব্যথা হলেই যেকোন ওষুধ না খেয়ে ঘরোয়া পদ্ধতিতে নিরাময়ের চেষ্টা করুন।

মাইগ্রেনের কোনও নির্দিষ্ট ওষুধ নেই। কিন্তু নিয়মিত যথেষ্ট পরিমাণে ঘুমোলে মাথা ব্যথা কমবে।

মাথা ব্যথা করলে, মাথা টিপে দিলে সব থেকে বেশি আরাম পাওয়া যায়।

অতিরিক্ত মাথা যন্ত্রণা করলে আইস প্যাক মাথা আর ঘাড়ে লাগান।

হাতের এক বিশেষ জায়গায় আকুপ্রেসারের মাধ্যমে কমতে পারে মাথার যন্ত্রনা।

মাথা ব্যথা করলে অতিরিক্ত আলো থেকে দূরে থারুন। কম্পিউটার বা মোবাইল নিয়ে ঘাটাঘাটি করবেন না।

টাটকা আঙুরের রস খান। জলের সঙ্গে মিশিয়ে দিনে দুবার এই রস খেলে ব্যথা থেকে স্বস্তি পাবেন।

মাইগ্রেন মানে মাথার সঙ্গে সঙ্গে শরীরের অন্যান্য অংশেও ব্যথা। আদা চা, বা আদার রস লেবুর রসের সঙ্গে মিশিয়ে খেলে ব্যথার উপশম হবে।

দারচিনি রান্নায় স্বাদ বাড়ায়। দারচিনি গুড়ো করে জলের সঙ্গে মিশিয়ে সেই পেস্ট কপালে লাগালে কমবে মাথা ব্যথা। আধ ঘণ্টা কপালে রেখে তা মুছে ফেলতে হবে।

মাঝে মধ্যে কফি খেতে পারেন। তবে ব্ল্যাক কফি খাওয়াই ভাল। কিন্তু অতিরিক্ত মাত্রায় কফি খাবেন না।

 

Leave a Reply

%d bloggers like this: