চাকুরিরতা মায়েদের চিন্তামুক্ত করা ও তাদের শিশুদের জন্যে কিছু স্বাস্থকর ও চটকদার খাবার

একটি চাকরিরতা মায়ের জন্যে তার দিনটি খুব ক্লান্তিকর হতে পারে বিশেষ করে তিনি যখন তাঁর সন্তানের সারাদিনের খাওয়া দাবার কথা চিন্তা করেন। আপনার বাচ্চাকে তার বাচ্চাকে সারাদিন ধরে খাবার জন্যে উত্সাহিত করা এমন একটি ক্লান্তিকর কাজ যার জন্যে আপনার সন্তানের পিছনে দৌড়ানোর প্রয়োজন হয়। আপনার সন্তানের সুস্বাদু খাবার প্রয়োজন কিন্তু আপনার চিন্তা থাকে তার পুষ্টি প্রয়োজন। ভাল স্বাদ এবং পুষ্টি কোনভাবে বরাবর পাওয়া যায় না। সুতরাং, যতটা সম্ভব আকর্ষণীয় হিসাবে এই পুষ্টিকর খাবার তৈরি করার জন্য আপনার সর্বোত্তম চেষ্টা করতে হবে এবং যদি আপনার সন্তানের এখনও তাদের খাওয়া খাওয়া নিয়ে সমস্যা থাকে, তবে আপনার দোষ না। নিচের তালিকাটি আপনাকে এমন একটি ধারণা যা আপনি নির্দ্বিধায় আপনার সন্তানকে খাওয়াতে পারেন।

১. ফল

একটি ফল সালাদ সর্বাধিক কর্মী মায়ের জন্য ভাল স্নেক । শুধু কিছু ফল দিলেই আশা করবেননা যে আপনার সন্তান যা ভলভাবে খেয়ে নেবে। পাতলা টুকরা করে ফল একটি প্লেটে কেটে রাখুন ও তার পর দিয়ে চকলেটের সিরাপ ঢেলে দিন। এটি কেবল আপনার সন্তানের স্কেক্সের বাক্সে আগ্রহের নিশ্চয়তা দেয় না, আপনার সন্তানকে কিছু অতিরিক্ত বন্ধুদের খুঁজে পেতে সহায়তা করতে পারে।

২. ভক্ষ্য শস্য

কেওলোগের চোকোস বেশিরভাগ ছেলেমেয়েদের জন্য সার্বজনীন পছন্দ বলে মনে করা হয়। দুধের সাথে এই খাদ্যশস্য দিনের জন্য একটি পুষ্টিৰ খাদ্য হিসাবে ধরা হয়। এর বিশেষ গুন্ হল, এর চকলেট এর সুগন্ধ ও সস্বাদ। এটি একটি প্রাতঃরাশ হিসাবে ভাল বা আপনার সন্তানের জন্য একটি স্নেক হিসাবে কাজ করে। এটির ওপর একটু মধু ঢেলেও আহার করতে পারেন।

৩. দই

সুগন্ধিযুক্ত দই, সে রাস্পবেরি, সবুজ আপেল বা ব্লুবেরি হোক, বেশিরভাগ মায়ের জন্য এটি খুব কার্যকরী। বিশেষত তাদের জন্যে যাদের মাথায় রোজ নতুন নতুন উপায় আসেনা। এগুলি শুধুমাত্র পুষ্টির সমৃদ্ধ নয়, তবে সুস্বাদু এবং রঙিন ও!

৪. শুকনো ফল

যদিও আপনার সন্তানের শুকনো ফল খাওয়ার কথা পছন্দ নাও হতে পারে, তবে কিছু নরম শুকনো ফল সৃজনশীল হতে পারে, যেমন মাফিন। আপনি তাদের উপর কিছু নাটিলা যোগ করতে পারেন, যা ওদের পছন্দ হবে।

৫. বাদামচাক

এটি আপনার সন্তানের পিটার জন্য ভাল কারণ এতে চিনাবাদাম এবং মধু ভালা আছে। বাদামচাক ছোট শিশুদের জন্য খাওয়া মোটামুটি কঠিন, তাই আপনি পুরো এর সম্পূরক পারেন বিভিন্ন বিস্কুট ও জ্যাম মিশিয়ে অর্থাৎ দুটি বিস্কুটের মাঝে জ্যাম লাগিয়ে শিশুকে দিলে সে আকর্ষিত হবে।

৬. ছোলা সেদ্ধ

এই জলখাবার খুব বেশী আপনার সন্তানের পেট খারাপ থাকলে অর্থাৎ পাতলা পায়খানা হলে সারিয়ে তোলে। নিয়মিত একটু একটু করে চলা সেদ্ধ শিশুকে খাওয়ান।

৭. মাইক্রোওয়েভ পপকর্ন

মাইক্রোওয়েভে পপকর্ন বানালে খাবারের ক্যালোরি বেশ খানিকটা কে যায় যতটা না রান্না করলে কমে । আপনার পপকর্ন রান্না করার জন্য মাইক্রোওয়েভ ব্যবহার করলে তেলের পরিমাণও কম লাগে এবং আপনার শিশু সঠিক ভাবে তা মজা নেয়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: