৬টি এমন জিনিস যা ডেলিভারির পূর্বে আপনি গোপনে আশা করেন

এই চিন্তাগুলি গর্ভবতী মহিলাদের মধ্যে খুবই সাধারণ। গর্ভাবস্থার পরে পরিস্থিতি সম্পর্কে আশ্চর্য হওয়া মানুষের উদ্বেগ ও কৌতূহল থেকে হয়। এই উল্লেখিত চিন্তাধারা কখনো না কখনো আপনার মনে নিশ্চিত গর্ভধারণের সময় বা পরে আপনার মনে আসবেই। বেশিরভাগ মহিলারা ঘুমানোর চেষ্টা করে, তাদের গর্ভবতী শিশুদের অনিশ্চয়তার কথা চিন্তা করে, এবং তাদের গর্ভাশয় শিশুদের সাথে কথা বলে সময় কাটায়। এটি আপনার শিশুকেও ভেতর থেকে নিশ্চিন্ত করে।

এই কয়েকটি ধারণা যা আপনি অস্বীকার করতে পারবেননা যে ডেলিভারির আগে আপনার মনে আসে।

১. ছেলে হবে না মেয়ে?

কিছু সময়ে, আপনি একটি মা হিসাবে একটি বিশেষ লিঙ্গের সন্তানের জন্য কামনা করে থাকেন। লিঙ্গের ওপর অগ্রাধিকার থাকা মহিলাদের মধ্যে বেশ সাধারণ। এই চিন্তার কারণে সম্ভবত আপনি একটি নির্দিষ্ট ধরণের পোশাক বা বিনামূল্যে আপনার সন্তানের নার্সারি পেইন্টিংউপভোগ থেকে দূরে থাকেন এবং ভাবেন যখন আপনার বাচ্চা জন্ম নেবে তখনই আপনি তাকে নিয়ে সবকিছু কেনাকাটা করবেন।

২. আমি কামনা করি আমার শিশুর চোখ দুটো যেন আমার মত হয়

আপনার বা আপনার স্বামীর মধ্যে যেই বিশেষসৌন্দর্য আছে, আপনার বাচ্চার এই জিনের উত্তরাধিকারীর জন্য আপনার সেই ইচ্ছা অনিবার্য। এটা ঘন চুল হোক, ভাল উচ্চতা বা সুন্দর চোখ / চোখের রঙ হোক, অজাত শিশুর বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে চিন্তা প্রতিটি মায়ের মনে চলে।

৩. আশা করি আমার ডেলিভারি সহজ ভাবে হোক

গর্ভাবস্থার সময় যত আপনার ডেলিভারির দিন এগিয়ে আসে, তুমুল প্রসব যন্ত্রণার কথা ভেবে আপনার ততই ভয় হতে শুরু করে। আপনি মনে মনে আশা করেন যাতে খুব বেশি যন্ত্রনা না হয়ে আপনার শিশু জন্ম নেয়।

৪. আমি আশা করি যেন আমার নর্মাল ডেলিভারি ছাড়া কিছু না হয়

সি-সেকশন একরকম নারীর মনকে ভয় দেয়। অধিকাংশ মহিলারা স্বাভাবিক ডেলিভারি আশা করে থাকে। তাই আপনি ভাবেন কত সাধারণ ভাবে সব হয়ে গেলে আপনি আপনার শিশুকে কোলে নিতে পারবেন।

৫. আমি আশা করি আমার স্তনের আকার আর যেন আগের মত ছোট না হয়ে যায়

গর্ভাবস্থায় নারীদের স্তন আকার বৃদ্ধির অভিজ্ঞতা সাধারণ ব্যাপার। ছোট আকার স্তনের নারীরা একটি পূর্ণাঙ্গ আকার অনুভূতি উপভোগ করেন। দুর্ভাগ্যবশত, গর্ভাবস্থার ক্ষেত্রে, স্তন বড় হওয়ার পর আবার নিজের আকারেও ফায়ার আসে। ভাল ব্রা ব্যবহার করুন যা আপনার স্তনের আকার অক্ষত রাখতে সাহায্য করতে পারেন।

৬. আমি আশা করি যেন আমার আমার স্বামী আমার হাতটি ধরে থাকে

অধিকাংশ হাসপাতাল অপারেশন থিয়েটারে প্রবেশ করতে অন্য কোন সদস্যকে অনুমতি দেয় না। যাইহোক, একটি মার জন্য, সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া একা একা সম্মুখীন হওয়া বেশ উদ্বেগের। বেশিরভাগ মহিলারা তাদের ডেলিভারির সময় আশা করেন যেন তার স্বামী হাত ধরে রাখতে পারে। যদি উনি আপনাকে সেই মুহূর্তে মনের জোর দেন, তবে আপনি নিজেকে পূর্ণ করতে পারবেন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: