বাড়িতে এই জিনিসগুলি রাখা ভাগ্যের জন্যে শুভ

আমরা আমাদের স্বপ্নের বাড়ি নিয়ে সর্বদাই খুব আবেগপ্রবণ এবং কখনোই চাইনা কোনো অশুভ তাকে ঘিরে ধরুক। এখানে ৬টি এমন জিনিসের কথা বলা হল আপনার বাড়ির সৌভাগ্য বজায় রাখতে সাহায্য করবে!

১. মুখে পয়সা ধরে রাখা তিন পায়ের ব্যাঙ ফেং শুইতে অত্যন্ত জনপ্রিয়। এই মূর্তি বাড়ির সদর দরজার আশেপাশে রাখা উচিত। এতে সৌভাগ্য ফেরে। তবে এই ধরনের ব্যাঙের মূর্তি কখনওই রান্নাঘর বা শৌচালয়ের ভিতরে রাখবেন না।

২. বাড়িতে মাছ রাখলে সৌভাগ্য বৃদ্ধি পায়। ড্রয়িং রুমে অ্যাকোরিয়াম রাখুন। তবে কখনওই গোল্ড ফিশকে রান্নাঘর, শোয়ার ঘর বা বাথরুমে রাখবেন না।

৩. সদর দরজার কোনাকুনি লিভিং রুমে লাফিং বুদ্ধ রাখলে আর্থিক এবং সার্বিক সমৃদ্ধি হয়। তবে লাফিং বুদ্ধ মূর্তি কখনওই একেবারে সদর দরজার সামনে রাখবেন না।

৪. ঘরের সদর দরজায় লাল রিবনে বেঁধে পয়সা ঝুলিয়ে রাখলে তা সৌভাগ্য এবং আর্থিক সমৃদ্ধি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। মনে রাখবেন, তিনটে পয়সা ঝোলালে তা বেশি কার্যকরী হয় বলে ফেং শুই মতে বিশ্বাস করা হয়। তবে পয়সাগুলি যেন দরজার ভিতরের দিকে ঝোলানো হয়।

৫. জোড়া ড্রাগন সমৃদ্ধির প্রতীক। এই ধরনের ড্রাগন মূর্তি পায়ের থাবায় যে মুক্ত বসানো থাকে, তা থেকে বাড়িতে ইতিবাচক এনার্জি আসে। এই ধরনের জোড়া ড্রাগন মূর্তি যে কোনও দিকে মুখ করেই রাখা যায়। কিন্তু পূর্ব দিকে মুখ করে রাখলে তা বেশি ফলপ্রসূ হয়।

৬. ঘরে কচ্ছপ মূর্তি রাখলে তা সুখ এবং আর্থিক সমৃদ্ধি বৃদ্ধি করে। এই ধরনের কচ্ছপ মূর্তি উত্তর দিকে মুখ করে রাখুন। কচ্ছপ মূর্তির মুখ যদি ভিতরের দিকে ঢোকানো হয়, তাহলে তা বেশি কার্যকরী বলে বিশ্বাস করা হয়। তবে কখনওই এই কচ্ছপ মূর্তি জোড়ায় রাখবেন না।    

Leave a Reply

%d bloggers like this: