কোন বয়সে আপনার শিশুর জন্যে ত্বক যত্নের পণ্য ব্যবহার করতে পারেন?

সদ্যজাত শিশুদের ত্বক খুব কমল হয়

শিশুদের ত্বক কমল হয়, পাতলা হয় এবং তাড়াতাড়ি শুকনো হয়ে যায়। পারফিউম, সাবান ও এলকোহল জাতীয় জিনিস লাগালে শিশুর এলার্জি হতে পারে! জন্মের পর শিশুদের কুকড়ানো ত্বক হয় ও ত্বকের ওপর মোটা, সাদা ভার্নিক্স থাকে যা এক সপ্তাহ পর খসে পরে।

প্রথম ক মাস শিশুকে মাত্র সেই পণ্য দেবেন যা শুধুমাত্র শিশুদের জন্য তৈরী। যদি পরিবারের আস্থ্মা বা এলার্জি থেকে থাকে তো ডাক্তারের সাথে কথা বলে নিন।

কিছু জিনিসের খেয়াল রাখবেন

সুবাস-শিশুর ত্বক ভালো হলে হালকা সিবাসে অসুবিধা নেই কিন্তু শুকনো ত্বক হলে কোনো ধরনের সুবাস দেওয়া পণ্য চলবে না।

থ্যালেত ও পারবেন জাতীয় জিনিস দেবেন না।

এলকোহল ছাড়া যেই পণ্য সেগুলি দেবেন যাতে শিশুর ত্বক শুকনো না হয়ে যায়।

মিনারেল অয়েল ত্বকের ছিদ্র বন্ধ করে দেয় ও হাওয়া ঢোকে না।

সালফেট ত্বককে বিরক্ত করে।

এন্টি বাক্তিরিয়াল বা এন্টি মায়ক্রবায়াল পণ্য দেবেন না।

পরিষ্কার করা

প্রথম বছরে মাত্রই সপ্তাহে দুবার চান করবেন না হলে শিশুর ত্বকের দরকারী তেল ধুয়ে যাবে.

দিনে একবার করে স্পঞ্জ দিয়ে মুখ, বগল,থুতনি ও পশ্চাতদেশ পরিষ্কার করে দেবেন. সুবাস যুক্ত পণ্য ব্যবহার করবেন না.

ময়শ্চারায়জিং

সুবাস ছাড়া করীম বা লোশন ব্যবহার করবেন. বেবি অয়েল দেবেন না।

ডাইপারের জায়গার যত্ন

শিশুর পশ্চাতদেশ ভেজা থাকে, পায়খানায় লিপ্ত থাকে এবং ঘষা খেয়ে যায়.তাই বার বার ডায়পার বদলাবেন ও ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে দেবেন.করীম লাগিয়ে দেবেন যাতে বেশি ভেজা না থাকে।

ম্যাসাজ

হালকা বেবি অয়েল দিয়ে ম্যাসাজ করবেন-শিশুর ভালো লাগবে ও আপনি তার সাথে কিছুটা সময় পেয়ে যাবেন।

নতুন জিনিস ব্যবহার করলে আগে একটু লাগিয়ে দেখুন.২৪ ঘন্টা অপেক্ষা করে দেখুন কিছু হয় নাকি.লাল হয়ে গেলে বা চুলকালে আর সেই পণ্য দেবেন না।

পামার্স

১৭৫বোছোর আগে আমেরিকার প্রথম ত্বক যত্নের কোম্পানি এই পামার্স ব্র্যান্ড তৈরী করে. ওদের সব পন্যই কক বাটার ধরনর পাওয়া যায়।

Leave a Reply

%d bloggers like this: