বিভিন্নজনের নিতম্বের আকার ভিন্ন হয়; জানুন কত রকম

মুখের গড়নের মতো নিতম্বের গড়নও নানা রকম হয়। নিতম্বের গড়ন কেমন হবে তা যেমন পরিবারের জিন-গঠনের উপর নির্ভর করে তেমনই এথনিসিটির উপরেও নির্ভর করে।

এথনিসিটি বা জাতিগত বৈশিষ্ট্যের উপর মূলত নির্ভর করে নিতম্বের গড়ন কেমন হবে। সব মিলিয়ে মানুষের মধ্যে চার রকম নিতম্বের গড়ন দেখা যায়—}

১) ভি-শেপ বা ইনভার্টেড

এখানে কোমর নিতম্বের তুলনায় সরু হয়। এই ধরনের নিতম্ব বেশ ভরাট হয় উপরের দিকে কিন্তু নীচের দিকটি একটু সরু হয়ে আসে। এই ধরনের নিতম্ব যতটা না বড় তার চেয়ে বেশি ভারী দেখতে লাগে।

২) স্কোয়ার শেপ

কোমর থেকে নিতম্ব যখন প্রায় সমান তখন সেটি হল চৌকো বা স্কোয়ার শেপ বাট। ছেলেদের এই ধরনের নিতম্ব বেশি দেখা যায়। এই নিতম্বকে ফ্ল্যাট শেপও বলা যায়।

৩) রাউন্ড

বাবল বা চেরি-শেপডও বলা হয় এই ধরনের নিতম্বকে। সমস্ত দিক থেকেই ভরাট এবং চওড়া তাই দেখতে গোলাকৃতি হয়। ওয়েস্ট-টু-হিপ রেশিও সমান থাকে। এই ধরনের নিতম্ব ওয়র্কআউটের মাধ্যমে খুব ভাল শেপ করা যায়।

৪) এ-শেপ বা ওভাল বুটি

পিছন থেকে দেখলে একটি হার্টের শেপের মতো মনে হয়। এই শেপটিই দৃশ্যত সবচেয়ে আকর্ষণীয় এবং সুন্দর। উপরের দিকটি অপেক্ষাকৃত ছোট থাকে। নীচের দিকটি বেশি ভারী হয়। এমন শেপ যাঁদের থাকে তাঁদের কোমর অনেকটা সরু হয়। 

Leave a Reply

%d bloggers like this: