বিয়ের পর কখনোই সম্পর্ক রাখতে এই ভুল করবেন না

বিয়ে মানেই এক নতুন সম্পর্কের সূচনা। তবে সব সম্পর্ক কিন্তু দীর্ঘস্থায়ী হয় না। বিশেষত আজকের দিনে ‘ডিভোর্স’-এর সংখ্যা ক্রমে ঊর্ধ্বমুখী। দিন দিন বিবাহবিচ্ছেদের হার বাড়ছে। সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার জন্য সবার আগে যা থাকা দরকার, তা হল ভালবাসা। প্রেমহীন দাম্পত্য সম্পর্কের মধ্যে সহজেই বিশ্বাসভঙ্গের ঘটনা ঘটতে পারে। এতে ভেঙে যেতে পারে সংসার। তাই সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে দু’জনেরই সচেতন হওয়া উচিত।


অধিকাংশ সম্পর্ক ভেঙে যায় বিভিন্ন কারণে, ঠিক তেমনি কিছু কারণ এখানে বলা হলো

বোঝাপড়া


সম্পর্কের ক্ষেত্রে দুই জনেরই উচিত দুই জনকে ঠিকমতো বোঝা। যদি দাম্পত্য জীবনে অসন্তুষ্টি আসে, তবে সম্পর্কের বন্ধন আলগা হয়ে যায়। শুধু সম্পর্ক টিকিয়ে রাখার জন্য ভালোবাসা থাকা জরুরি। এর জন্য চাই বোঝাপড়া। তাই দাম্পত্য জীবনে সুখী থাকতে খেয়াল রাখুন যাতে এক অন্যের সঙ্গে বোঝাপড়া ঠিক থাকে।

সন্দেহ


পরস্পরের প্রতি অহেতুক সন্দেহ সম্পর্কের বন্ধন আলগা করে দেয়। সন্দেহের পরিবর্তে ভালোবাসা তৈরি করতে হবে। সম্পর্কের বাঁধন মজবুত করার বিষয়গুলোয় জোর দিতে হবে।

প্রলোভন


জীবনে চলার পথে বিভিন্ন প্রলোভন সামনে আসতে পারে। তবে সেই সব ফাঁদে পা দেওয়ার থেকে স্বামী-স্ত্রী উভয়কেই সতর্ক থাকতে হবে। পরস্পরের প্রতি বিশ্বাস অটুট রাখতে হবে।

আলোচনা


আলোচনায় অনেক সমস্যার সহজ সমাধান মেলে। দাম্পত্যের ক্ষেত্রেও একই কথা প্রযোজ্য। তাই স্বামী-স্ত্রীর উচিত যে কোনও বিষয়েই পরস্পরের সঙ্গে খোলামেলা আলোচনা করা।

অনুভূতি


অনুভূতির প্রকাশ দাম্পত্য জীবনে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। অনুভূতি বিনিময় সম্পর্কের গভীরতা বাড়ায়। পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধা, ভালোবাসা, নির্ভরতাও বাড়িয়ে তোলে। তাই অনুভূতি চেপে না রেখে তা কাছের মানুষটির সঙ্গে ভাগ করে নিন। 

Leave a Reply

%d bloggers like this: