মায়ের গর্ভে শিশুর হিচকি

বলা হয় যে ভুল করে এম্নীয়তিক ফ্লুইড খেয়ে নিলে হেঁচকি ওঠে শিশুদের। ফুসফুস ও দিয়াফ্রাগ্ম বন্ধ হয়ে যাওয়ায় এই হেঁচকি হয়।

এটি খুব স্বাভাবিক একটি ঘটনা ও বোঝা যায় যে শিশু সুস্থ ভাবে মানুষ হচ্ছে। এটা হলে পেটে টানা একটি মুভমেন্ট হয়। যদি ক সেকেন্ডের বেশি এই অবস্থা থাকে তো ডাক্তার দেখান। মাঝে মাঝে হেঁচকি তুলে শিশুর অবস্থান বদলে যায়।

 

দ্বিতীয় ও তৃতীয় ত্রৈমাশিকে এগুলি হয়ে থাকে ও তাড়াতাড়ি দমে যায়। পেটে হালকা করে হাত বুলিয়ে দিলেও শান্ত হয়ে যায় শিশু। দিনে ১-২ বার এই জিনিসটি হতে পারে।

নবজাত শিশুদের মধ্যে হিচকি খুব স্বাভাবিক। গর্ভাবস্থায় যদি সে হিচকি তুলে থাকে তাহলে জন্মের পরেও তুলবে। কিন্তু এটি নিয়ে কোনো বিশেষ চিন্তা নেই।

Leave a Reply

%d bloggers like this: