লক্ষণগুলি চিনছেন? ক্যান্সার নয় তো?

ক্যান্সারের নাম শুনলেই মানুষ আতঙ্কিত হয়ে পরে কারণ আজও চিকিৎসা বিজ্ঞান ক্যান্সারকে সম্পূর্ণ ভাবে সারিয়ে তোলার উপায় আবিষ্কার করতে পারেনি। তবে প্রথম স্টেজে যদি ক্যান্সার ধরা পরে, সে ক্ষেত্রে অবশ্যই সম্ভব। ক্যান্সারকে প্রথম স্টেজে কী ভাবে চিহ্নিত করা যাবে। কিছু শারীরিক উপসর্গের আছে যেগুলো ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণ।

ওজন


ওজন আচমকা ৪ থেকে ৫ কিলো কমে যায় তবে সেটা ক্যান্সারের প্রাথমিক লক্ষণ হতে পারে। এই ভাবে হঠাৎ ওজন কমে যাওয়াটা সাধারণত পেটের, প্যানক্রিয়াসের বা ফুসফুসের ক্যান্সারের লক্ষণ হতে পারে।

মুখে বা গায়ের তিলের ধরণ


খেয়াল করলে দেখবেন অনেকেরই ত্বকে তিল থাকে, এ’টা স্বাভাবিক ব্যাপার। কিন্তু এই সব তিলের আকারে আচমকা পরিবর্তন দেখা দিলে বা এগুলোর রঙ পালটে গিয়ে গাঢ় আর কালচে হয়ে ওঠা ত্বকের ক্যানসারের লক্ষ্মণ হতে পারে, তাহলে দ্রুত চিকিৎসার ব্যবস্থা করুন।

রক্তক্ষরণের সমস্যা


অনেক দিন ধরে কাশিতে ভুগছেন, আর কাশির সঙ্গে রক্তক্ষরণও হচ্ছে? এই সমস্ত চিহ্নগুলো কিন্তু ক্যানসারের লক্ষণ হতে পারে। কাশি, কফ আর রক্তক্ষরণ বেশিদিন থাকলেই ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

পেটে ব্যথা ও খিদে


পেটে ব্যথার এবং তার সঙ্গে খিদে না পাওয়া, মাঝে মধ্যে রক্তবমি হওয়া, তার ওপর রক্তাল্পতা , পাতলা মলত্যাগ ইত্যাদি; এই ধরণের সমস্যাকে একদমই অবহেলা করবেন না। এই সমস্ত উপসর্গই পেটের ক্যান্সারের লক্ষণ হতে পারে।

স্তনে মাংস পিণ্ড অনুভব


কোনও মহিলার যদি নিজের স্তনে মাংস পিণ্ড অনুভব করেন তাহলে দেরী না করে ডাক্তারের কাছে যাওয়া উচিৎ কারণ স্তনের ভিতরে মাংস পিণ্ড ব্রেস্ট ক্যানসারের লক্ষণ হতে পারে।

মুখের ভিতরে ঘা 


মুখের ভিতর কোন মাংস পিণ্ড গজিয়ে ওঠা, মুখের ভিতর সাদা ছোপ দেখা দেওয়া, অত্যধিক লালা ঝরা, মুখের ভিতর বিশ্রী গন্ধ হওয়া, কথা বলা বা ঢোক গিলতে সমস্যা, এগুলো সমস্ত মুখের ক্যানসারের লক্ষণ। 

Leave a Reply

%d bloggers like this: