পেট খালি থাকলে কি কি করবেন না

না জেনে আমরা খালি পেটে এমন অনেক কাজ করে থাকি বা কিছু খাবার খেয়ে থাকি যা আমাদের করা উচিত নয়। এর ফলে আমাদের শারীরিক অসুস্থতা হতে পারে বা অন্য রকম প্রতিক্রিয়া হতে পারে।

ব্যথা কমানোর ওষুধ

অ্যাসপিরিন‚ প্যারাসিটামল বা অন্য যে কোনো ব্যথা কমানোর ওষুধ খালি পেটে খাবেন না। এর ফলে ওষুদের কার্যক্ষমতা কমে যায়। খাবার খেতে না ইচ্ছা হলে দুধের সঙ্গে এইসব ওষুধ খেতে পারেন। দুধ যদি না থাকে তাহলে ওষুধের সঙ্গে অন্তত ২ গ্লাস জল পান করুন।

কফি খাবেন না

খালি পেটে কফি খাওয়ার ফলে অ্যাসিড তৈরি হয় শরীরে যার ফলে বুক জ্বালা‚ অম্বল হতে পারে। এছাড়াও এর ফলে শরীরে সেরোটোনিনের কমতি হতে পারে যার ফলে সারাদিন শারীরিক অসস্থি হতে পারে। দিনের অন্য সময়ও খালি পেটে কালো কফি খাবেন না। সব সময় চেষ্টা করুন ব্রেকফাস্টের পর কফি খেতে।

মদ খাবেন না

কিছু খাবার না খেয়ে মদ্যপান করলে মদ্যপানের প্রভাব অনেকেটাই বেড়ে যায়। ফলে কিডনি‚ লিভার আর হার্ট ক্ষতিগ্রস্ত হয়। একই সঙ্গে খালি পেটে মদ খেলে অ্যাসিডিটি হওয়ার সম্ভাবনাও অনেকটা বেড়ে যায়।

চিউয়িংগাম খাবেন না

চিউয়িং গাম খাওয়ার ফলে যে ডাইজেস্টিভ অ্যাসিড তৈরি হয় তা পেটের লাইনিং এর ক্ষতি করে। চিউয়িং গাম খেলে গ্যাস্ট্রিয়াটাইটিসের সম্ভাবনাও অনেকেটা বেড়ে যায়। এছাড়াও প্রমাণিত হয়েছে যারা বেশি চিউয়িং গাম খায় তাদের জাঙ্ক ফুড খাওয়ার প্রবণতা অনেক বেড়ে যায়।

পেট ভর্তি খাবার

শুতে যাওয়ার ঠিক আগে পেট ভর্তি খাবার খাওয়াও মোটেই ভালো ভালো নয়। সব থেকে ভালো হয় শুতে যাওয়ার আগে গরম দুধ আর মধু খান। অন্য কোনো দুগ্ধ জাতীয় খাবার খেতে পারেন।

ব্যায়াম বা যোগাসন

ধারণা আছে খালি পেটে ব্যায়াম বা যোগাসন করলে বেশি ক্যালোরী বার্ণ হয়। আসলে কিন্তু তেমন হয় না। উল্টে শরীরে এনার্জি কমে যাওয়ার ঠিকমতো ব্যায়াম বা যোগাসন করতে পারবেন না। হজমের সমস্যা থাকলে কোনমতেই খালি পেটে ব্যায়াম বা যোগাসন করবেন না। 

Leave a Reply

%d bloggers like this: