কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়ে ঘর আলো করলেন হেমা মালিনী কন্যা এশা দেওল

দীপাবলির আনন্দের পরপরই এলো আরেক খুশির খবর। মা হয়েছেন জনপ্রিয় বলিউড অভিনেত্রী এশা দেওল। হেমা মালিনি- ধর্মেন্দ্রর পরিবারে এখন নতুন উৎসবের আমেজ।

নাতির পর এবার ঘর আলো করে এলো নাতনি। তাই আনন্দে আত্মহারা বলিউডের দুই বর্ষীয়ান অভিনয়শিল্পী ধর্মেন্দ্র ও হেমা মালিনী। তাদের ছোট মেয়ে অভিনেত্রী এশা দেওল মা হয়েছেন। তার স্বামী ভারত তাখতানিরও তাই খুশির সীমা নেই। সোমবার (২৩ অক্টোবর) তাদের কোলে এসেছে ফুটফুটে এক মেয়ে।

 এটা এশা ও ভারতের প্রথম সন্তান। মুম্বাইয়ে হিন্দুজা হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে নবজাতকের জন্ম হয়। সন্তানসম্ভবা থাকাকালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিয়মিত আনন্দগুলো ভাগাভাগি করেছেন ৩৫ বছর বয়সী এশা।

দুই বছর আগে ধর্মেন্দ্র ও হেমা মালিনীর বড় মেয়ে অহনা দেওল এক ছেলের মা হন। তার নাম ডারিয়েন। নাতির পর এবার নাতনিকে পেয়ে যারপরনাই আনন্দিত তারা। বলিউড তারকারা এখন এশা আর ভারতকে অভিনন্দনে সিক্ত করছেন।

কয়েক বছর মন দেওয়া-নেওয়ার পর ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ব্যবসায়ী ভারত তাখতানির সঙ্গে আংটি বদল করেন এশা। তাদের বিয়ে হয় ওই বছরের জুনে। গত এপ্রিলে মেয়ের সন্তানসম্ভবা হওয়ার খবর টুইটারে জানান হেমা মালিনীর আত্মজীবনীর লেখক রামকমল মুখার্জি। ‘বিয়ন্ড দ্য ড্রিম গার্ল’ নামের বইটি প্রকাশিত হয়েছে চলতি মাসে।

হেমা মালিনীর আগে ধর্মেন্দ্র বিয়ে করেন প্রকাশ কৌরকে। ওই ঘরে আছে দুই ছেলে সানি দেওল ও ববি দেওল ও দুই মেয়ে বিজিতা ও অজিতা কৌর। ধর্মেন্দ্রর নাতি অর্জুন শিগগিরই তার বাবার পরিচালনায় একটি ছবির মাধ্যমে নায়ক হিসেবে পা রাখবেন বলিউডে।

২০০২ সালে ‘কোই মেরে দিল সে পুছে’ ছবির মাধ্যমে বলিউডে অভিষেক হয় এশার। এরপর ‘ধুম’, ‘যুবা’, ‘কুছ তো হ্যায়’, ‘কাল’, ‘নো এন্ট্রি’, ‘ডার্লিং’ প্রভৃতি ছবিতে অভিনয় করেন তিনি। ২০১৫ সালে ‘কিল দেম ইয়াং’-এর মাধ্যমে সবশেষ বড় পর্দায় দেখা গেছে তাকে। একই বছর তিনি উপস্থাপনা করেন রিয়েলিটি শো ‘রোডিস এক্সটু’।

Leave a Reply

%d bloggers like this: