আপনার শিশু কি ঘুমের সময় নাক ডাকে?

কমবেশি সব শিশুই মাঝেমধ্যে নাক ডাকে। কিন্তু যে শিশুরা নিয়মিত নাক ডাকে তাদের পর্যাপ্ত ঘুম হয়না।

আপনার ছোট্ট শিশুটি যদি ঘুমানোর সময়ে নাক ডাকে, তা হলে এই সমস্যাকে একেবারেই উপেক্ষা করবেন না। সাম্প্রতিক একটি সমীক্ষা থেকে উঠে আসা তথ্য অনুযায়ী, নাক ডাকলে শিশুদের পড়াশোনায় তার প্রভাব পড়ে। তাদের মনোযোগ বিঘ্নিত হয়।

কমবেশি সব শিশুই মাঝেমধ্যে নাক ডাকে। কিন্তু যে শিশুরা নিয়মিত নাক ডাকে, তাদের পর্যাপ্ত ঘুম হয় না। ফলে, দিনের বেলা তাদের ক্লান্তি গ্রাস করে। এর জেরে তারা পড়াশোনায় মন দিতে পারে না, শেখার ক্ষমতাও কমে যায়। এমনকী, তাদের স্বাভাবিক বৃদ্ধিও বাধাপ্রাপ্ত হয়।

যদিও শিশুদের নাক ডাকার ক্ষতিকর দিকটি সম্পর্কে অধিকাংশ বাবা-মায়েরই কোনও ধারণা নেই বলেই গবেষকরা দাবি করেছেন। মূলত টনসিল বা কন্ঠনালিতে কোনও গ্ল্যান্ড বেড়ে গেলে নাক ডাকার সমস্যা হতে পারে বলে জানাচ্ছেন তাঁরা। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।

শূন্য থেকে এগারো বছর বয়সি প্রায় ১৩০০ শিশুর মধ্যে সমীক্ষা চালানো হয়েছিল। তাদের মধ্যে প্রায় ৫ শতাংশ শিশুর মধ্যে নিয়মিত নাক ডাকার সমস্যা দেখা গিয়েছে।

যাদের মধ্যে এই সমস্যা রয়েছে, সেই শিশুদের মধ্যে মাত্র এক-তৃতীয়াংশ শিশুর বাবা-মায়েরাই নাক ডাকার জন্য শিশুদের চিকিৎসা করিয়েছেন বলে ওই সমীক্ষায় উঠে এসেছে। এর থেকেই পরিস্কার যে, শিশুদের নাক ডাকার ক্ষতিকারক দিকগুলি নিয়ে খুব কম সংখ্যক বাবা-মায়েরাই ওয়াকিবহাল।

Leave a Reply

%d bloggers like this: