আপনি কি পেট ভোরে ভাত খান? তাহলে জানুন

বাঙলিরা গরম গরম ভাত পলে আর কিছু চায় না, আর তার সাথে যদি থাকে ঘি, বেগুন ভাজা ও কাঁচা লঙ্কা তবে তো আর কোনো কথাই হবে না, ভাতের পরিমানের কথা সবাই ভুলে যাবে। কিন্তু ঠিক নয়, এতে আপনার শরীরের ক্ষতি। কিন্তু ভাত অবশ্যই উপকারি খাবার। বাঙালি সারাদিনে একবার ভাত খাবে না, সেটা হতেই পারে না। অনেক দিনে অনেক বার ভাত খায়। তাতেও তেমন ক্ষতি নেই। কিন্তু পেটপুরে ভাত খাওয়াটা মারাত্মক বিপদ ডেকে আনতে পারে।


১. প্রথমেই জানুন, ভাত ওজন বাড়ায়। অপরিমিত ভাত অতিরিক্ত ওজন বাড়ায়।


২. বেশি পরিমাণে ভাত খেলে অন্যান্য সবজি ও মাছ মাংস খাওয়া কম হয়। এতে ভিটামিন ও প্রোটিনের ঘাটতি হয়।


৩. লাল চালের ভাত বেশি উপকারি। কিন্তু সাদা চালে পুষ্টিগুণ একেবারেই কম। বরং কার্বোহাইড্রেট মেটাবোলিজম কমিয়ে দেয়। হজম শক্তি কমায়।


৪. বেশি পরিমাণে ভাত খেলে ঘুমের আধিক্য দেখা দেয়। এবং ভাত খাওয়ার পরে ঘুম শরীরের ক্ষতি করে।


৫. শুধু ভাত নয়, চাল থেকে তৈরি যে কোনও খাবারই বেশি পরিমাণে খাওয়া ঠিক নয়। হজমশক্তি কমে তো যায়ই, তার উপরে নানা রকম হার্টের অসুখেরও কারণ হয়ে ওঠে।


তা বলে ভাত খাওয়া ছাড়বেন না। বাঙালি বাঙালি গন্ধটাই তো তবে গা থেকে চলে যাবে। খান, তবে নির্দিষ্ট পরিমানে। 

Leave a Reply

%d bloggers like this: