ডেলিভারির পূর্বে কি আপনি আপনার এই ভাবনাগুলি অস্বীকার করতে পারেন?

শিশুর প্রথম হাসি দেখার জন্য প্রত্যেক মা ৯ মাস অপেক্ষা করে। শিশু এসে জীবন আলো করে তোলে এবং তাই এই ৯ মাস মায়েরা অনেক কিছু চিন্তা করেন না, শিশুকে নিয়ে স্বপ্ন দেখেন-, মা তো শিশুকে সবার আগে চেনে! তাই এই ৫টি ভাবনা কেউ অস্বীকার করতে পারবেন না।

১. কেমন দেখতে

ছেলে হোক বা মেয়ে হোক- মা সমান ভালোবাসবেন এবং চিন্তা করবেন শিশুকে কেমন দেখতে. যেমনই হোক, মায়ের কাছে সে সব থেকে সুন্দর।

২. কার মত দেখতে?

মা বাবার বিশেষ তর্ক-কার মত দেখতে? যেহেতু দুজনের মিলন, তাই মা তো চাইবেন দুজনের সব থেকে সুন্দর অঙ্গ শিশু পাক.

৩. সন্তানের প্রকৃতি

যদিও শিশুর চরিত্র মা বাবার মানুষ করার ধরনের ওপর নির্ভর করে, তবুও তার প্রকৃতি কিছুটা গর্ভেই ঠিক হয়ে যায়.তাই মা চাইবেন যে শিশু মা বাবার চরিত্রের গুন গুলো পাক.

৪. শিশুর ভবিষ্যত

মা শিশুর ভবিষ্যত, তার জীবন ও পেশার কথা ভাবেন. শিশুকে নিয়ে তো স্বপ্ন থাকবেইনা?

৫. প্রসব

৯ মাস পরে আসে সেই দিন ও সব মায়ের চিন্তা হয় যে প্রোব কেমন হবে। কারণ প্রসবের ব্যথা এক সাথে ২০ টা হাড় ভাঙ্গার সমান। মায়ের ভয় লাগলেও সে শিশুর ক্ষতি হতে দেবে না।

এই বিশাল দায়িত্ব ভগবান মায়েদের দিয়েছেন তাদের মানসিক ও শারীরিক শক্তির জন্য। শিশু কার মত দেখতে হবে এটার চিন্তা করা আপনার অধিকার কেননা আপনার থেকে বেশি শিশুকে কেউ ভালবাসে না।

Leave a Reply

%d bloggers like this: