মাথা ব্যথা হওয়া ও জলদি কমানোর উপায়

এই সমস্যা জীবনের যে কোনো সময়ে আসতে পারে আপনার জীবনে। কেন হয় এবং এই সময়ে কি করলে আপনি উপকার পেতে পারেন। আসুন জেনেনি তেমনি কিছু উপায়-

১. যৌনজীবন উপভোগ করুন। শত ব্যস্ততার মধ্যেও নিজের ব্যক্তিগত মুহূর্তগুলিকে উপভোগ করতে ভুলবেন না।

২. মাত্রারিতিক্ত পেন কিলার খাবেন না। মাথাব্যথা করছে বলেই ওষুধ খেয়ে নেবেন না। কেননা, এতে মাথাব্যথা ক্রনিক হয়ে যাবে।


৩. সোজা হয়ে বসুন। সামনের দিকে ঝুঁকে কাজ করবেন না। এতে মাথা ধরা বাড়ে।

৪. দানাশস্য জাতীয় খাবার বেশি করে খান। এতে অনেক বেশি পরিমাণে মিনারেল থাকে, যা আমাদের ব্লাড প্রেশার, সুগার নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।


১৫. গন্ধ মাথাব্যথার অন্যতম বড় কারণ, তাই উগ্র গন্ধের থেকে দূরে থাকুন।

৬. বেশিক্ষণ কম্পিউটার স্ক্রিনের তাকিয়ে থাকাটা চোখ এবং মাথা দুইয়ের পক্ষেই খুব ক্ষতিকারক। টানা কুড়ি মিনিট কম্পিউটারে কাজ করার পরে কুড়ি সেকেন্ডের বিরতি নিন।


৭. বাইরের খাবার কম করুন। বাড়ির খাবারের বদলে বাইরের খাবার খাওয়ার প্রবণতা বর্তমান জীবনের একটা ক্ষতিকারক অংশ।

৮. মহিলাদের ক্ষেত্রে চুল বাঁধার ধরনের উপর মাথাব্যাথা নির্ভর করে। কখনই টেনে চুল বাঁধবেন না।


৯. জলের বিকল্প কিছু নেই। বেশি করে জল খান। জল আমাদের শরীরকে সুস্থ ও সতেজ রাখে।

১০. কাজের মাঝে যখন-তখন ঘুমিয়ে পড়বেন না। এতে মাথাব্যথা বাড়তে পারে। 

Leave a Reply

%d bloggers like this: