শীত পড়ার আগে হিমেল হাওয়ায় ত্বকের যত্ন

শীত পড়েনি, অথচ আবহাওয়া এমনই যে ত্বকে অল্প টান ধরতে শুরু করেছে। চুলে খুশকির সমস্যাও বেড়ে যায় এই সময়। স্কিন কেয়ার রুটিন ঠিক কী রকম হওয়া উচিত এখন, বুঝে উঠতে পারেন না অনেকেই। জেনে নিন ত্বক আর চুল ঝকঝকে রাখতে কী কী করণীয়।

১। সাবানের ব্যবহার বন্ধ করে দিন। নাহলে ত্বক আরও শুকনো হয়ে পড়বে। জেল জাতীয় ক্লেনজারও যতটা সম্ভব কম ব্যবহার করুন। পরিবর্তে বেছে নিন যে কোনও হাইড্রেটিং ক্লেনজার। ড্রাই স্কিন হলে কোনও ক্রিম-বেস্‌ড ক্লেনজার ব্যবহার করতে শুরু করুন।

২। স্নানের শেষে বডি অয়েল লাগানোর অভ্যেস করে ফেলুন। বাজারচলতি তেলের বদলে বিভিন্ন এসেনশিয়াল অয়েল মিলিয়ে-মিশিয়ে বাড়িতেই বানাতে পারেন বডি অয়েল। তেল মাখার অভ্যেস না থাকলে গোলাপজল-গ্লিসারিনেও কাজ চলবে। ঠোঁট আর গোড়ালির যত্ন নিন আলাদা করে। রাতে শুতে যাওয়ার আগে অবশ্যই নাইট ক্রিম লাগাবেন।

৩। অয়েল-বেস্‌ড স্ক্রাবার ব্যবহার করুন। সপ্তাহে অন্তত তিন-চার দিন স্ক্রাবিং জরুরি। মধু আর চিনির ন্যাচারাল স্ক্রাবের জুড়ি হয় না। এছাড়া ত্বক নরম রাখতে মধু, দুধ, আমন্ড, ওটমিল দিয়ে ফেস মাস্ক বানাতে পারেন।

৪। দিন ছোট হয়ে আসছে। তাপমাত্রার পারদও নামছে। রাতে পাখা বন্ধ করে ঘুমোতে যাচ্ছেন অনেকেই। এই সময় থেকেই ত্বক আর্দ্রতা হারাতে শুরু করে। তাই নিয়মিতভাবে ত্বকের এক্সফোলিয়েশন আর ময়েশ্চারাইজিং করা জরুরি।

৫। ত্বকের মৃত কোষ নিয়মিত পরিষ্কার করা দরকার এই সময়। চুলে খুশকির সমস্যাও শুরু হওয়ার সময় এটা। খুশকি দূর করার একটা সোজা উপায় হল স্নানের আগে নারকেল তেলের সঙ্গে কয়েক ফোঁটা পাতিলেবুর রস মিশিয়ে চুলে ম্যাসাজ করা। তারপর গরম জলে তোয়ালে ভিজিয়ে মাথায় জড়িয়ে রাখতে পারেন। মিনিট পনেরো পর শ্যাম্পু করে ফেলুন।

Leave a Reply

%d bloggers like this: