গর্ভধারণের জন্য সঠিক বয়স কোনটি?

আপনার মনে হতেই পারে কোন বয়সটি নারীদের গর্ভধারণের জন্য সবচেয়ে উপযুক্ত! বিয়ের পর নিজের পরিবার এবং নিজেকে গুছিয়ে নেওয়ার জন্য মেয়েরা দেরি করেই সন্তান নিয়ে আগ্রহী। কিন্তু সাধারণ মানুষের ধারণাটি হলো, বয়স ৩০ পেরোনোর আগেই প্রথম সন্তান নিয়ে নেওয়া উচিৎ। অবশ্য এখনকার সময়ে নারীরাই এই বাধ্যবাধকতার মধ্যে নিজেকে আর বেধে রাখছেন না। যে কারণে অনেকের অনেক কথা এবং নানান রকম উপদেশ শুনতে হয় নিত্যদিন‍!

গর্ভধারণের আদর্শ বয়স কোনটি


নারীদের গর্ভধারণের জন্য একদম আদর্শ এবং সঠিক বয়স হলো ৩৪, কারণ এই পৃথিবীর বুকে নতুন আরেকটি জীবন আনার প্রক্রিয়াটি খুব একটা সহজ প্রক্রিয়া নয় এবং ব্যপারটি খুব ছোট কোন ব্যপারও নয়। একজন নারীর জন্য সন্তান গর্ভধারণ করা এবং জন্ম দেওয়ার ব্যপারটা জীবনের অনেক বড় একটি ঘটনা। তাই প্রতিটি নারীর উচিৎ, নিজের চারপাশ, নিজের কর্মক্ষেত্র, নিজের ক্যারিয়ার এবং নিজেকে গুছিয়ে নিয়ে সন্তান গ্রহণের সিদ্ধান্তে আসা।

কী কারণে এই বয়সটি গর্ভধারণের জন্য আদর্শ


নারীদের সন্তান গর্ভধারণের জন্য ৩৪-৩৫ বছর বয়সটাই একদম সঠিক বয়স। কারণ, ৩০ বছরের পূর্বে নারীদের শরীরে যেকোন ধরণের রোগ হওয়া অথবা স্বাস্থ্যগত সমস্যা দেখা দেওয়ার সমূহ সম্ভবনা রয়ে যায়। কিন্তু, ৩০ এর পর থেকে নারীদের স্বাস্থ্য অনুকূল পরিস্থিতিতে থাকে, যার ফলে তখন নারী স্বাস্থ্য একটি সন্তান গর্ভধারণের জন্য একদম প্রস্তুত থাকে।


যে সকল নারীরা ৩৪-৩৫ বছরের মধ্যে সন্তান জন্মদান করেন তাদের সঙ্গীর সাথে তাদের দারুণ সুসম্পর্ক থাকে। তাদের দারুণ এবং যথেষ্ট পরিমাণে শারীরিক সক্ষমতা থাকে এবং কর্মক্ষেত্রেও তারা সফলতা লাভ করে থাকে। একই সাথে সবচেয়ে দারুণ ব্যপার হলো, তারা সন্তান লালন পালনের জন্য যথেষ্ট পরিণত হয়ে থাকেন। এই কারণে বলা যায় যে ৩০ বছরের পর সন্তান গর্ভধারণ করাটা সকল দিক থেকেই দারুণ অনুকূল।


আর সকল কিছু ঠিক করে সন্তান গ্রহণ করার সময় বয়স ৩০ পার হয়ে গেলে যেন দুশ্চিন্তা করতে না হয়, তার জন্যেই মাইক্রস্কির এই গবেষণালব্ধ ফলাফল রইল আপনাদের জন্য।

Leave a Reply

%d bloggers like this: